খুলনার মশিয়ালী হত্যাকাণ্ড মামলা ডিবিতে

জয়বার্তা ডেস্ক :

খুলনার মশিয়ালীতে ত্রিপল হত্যাকাণ্ডের ১০ দিন পরও মূল অভিযুক্ত জাকারিয়া হোসেন ও তার ভাই মিল্টনকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় একাধিক আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার হলেও তা উদ্ধার হয়নি। ফলে তদন্তে গতি বাড়াতে মামলাটি মহানগর ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে খানজাহান আলী থানার ওসি (তদন্ত) মো. কবির হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মামলার নতুন তদন্তভার দেয়া হয়েছে ডিবি ইন্সপেক্টর এনামুল হককে।

এরই মধ্যে মামলার নথি ও গ্রেফতার হওয়া আসামিদের ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ডিবি ইন্সপেক্টর এনামুল হক জানিয়েছেন, নতুন করে গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। রিমান্ডের মেয়াদ মেষ হলে প্রয়োজনে নতুন করে রিমান্ডে নেয়া হবে।

জানা যায়, ১৬ জুলাই রাতে জাকারিয়া-জাফরিনদের গুলিতে খানজাহান আলী থানার মশিয়ালী এলাকায় একই সঙ্গে তিনজন নিহত হলে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে গ্রামবাসী। পরে উত্তেজিত জনতা তাদের বসতবাড়ি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন ও জাকারিয়ার আত্মীয় জিহাদ শেখকে পিটিয়ে হত্যা করে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া মামলার অন্যতম আসামি জাফরিন হাসান পুলিশকে বিভ্রান্তকর তথ্য দিচ্ছে। তার দেয়া তথ্যে কয়েকটি স্থানে অভিযান চালিয়েও অস্ত্র উদ্ধার করা যায়নি। অপরদিকে আসামিদের গ্রেফতার ও অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে পুলিশের ওপর চাপ বাড়ছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে সব আসামিকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে আওয়ামী লীগ। একই দাবিতে এলাকায় মিছিল, সমাবেশ করছে হতাহতের পরিবার ও ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী।

খানজাহান আলী থানার ওসি (তদন্ত) মো. কবির হোসেন জানান, মামলাটির তদন্তভার শনিবার রাতে ডিবিকে দেয়া হয়েছে। এরইমধ্যে রিমান্ডে থাকা আসামিদের ডিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *