চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে পারবে তো রোনালদোর জুভেন্তাস?

স্পোর্টস ডেস্ক :

চারে থাকা আটালান্টার সঙ্গে ব্যবধানটা বাড়ানোর সুযোগ ছিল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জুভেন্তাসের। তবে সে সুযোগটা নিতে তো ব্যর্থ হলোই দলটা, উল্টো শেষ দিকে গোল হজম করে হেরেছে ১-০ গোলে। এর ফলে কোচ আন্দ্রেয়া পিরলোর দল নেমে গেছে সিরি’আর চতুর্থ স্থানে। আগামী মৌসুমে দলটির চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা নিয়েই জেগেছে সংশয়।

আটালান্টার বিপক্ষে গত ডিসেম্বরে নিজেদের মাঠে প্রথম দেখায় ১-১ গোলে ড্র করেছিল সিরি’আ শিরোপাধারীরা। সেদিনের অধরা জয়টা এদিন তুলে নেওয়ার লক্ষ্যেই মাঠে নেমেছিল তারা। তবে চোটের কারণে এদিন দলে ছিলেন না রোনালদো। ম্যাচের আগে বড় এক ধাক্কাই খেয়ে বসে বিয়েঙ্কোনেরিরা।

রোনালদোকে ছাড়া জুভেন্তাসের আক্রমণ হয়ে যায় ভোঁতা, বিরতির আগে গোলের উদ্দেশে তারা ১০টি শট নিয়ে একটিও রাখতে পারেনি লক্ষ্যে। তবে আটালান্টাও সুযোগ নষ্টের মিছিলে শামিল হয়েছিল এদিন। বিরতির আগে তাদেরও কোনো শট ছিল না গোলমুখে।

তবে বিরতির পর জুভেন্তাস রক্ষণে ত্রাস ছড়াতে থাকে কোচ পিয়েরো গ্যাসপারিনির আটালান্টা। ৫৯ মিনিটে বিপদসীমার বাইরে থেকে স্ট্রাইকার লুইস মুরিয়েলের চেষ্টা অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

জুভেন্তাসও কম চেষ্টা করেনি, ৬৩ মিনিটে পাওলো দিবালার ফ্রি-কিক বেরিয়ে যায় যায় ক্রসবারের একটু ওপর দিয়ে। এতক্ষণ পর্যন্ত গোলমুখে শট ছিল না একটিও। ৭২ মিনিটে আলভারো মোরাতার চেষ্টায় খরাটা কাটে। যদিও আটালান্টা গোলরক্ষকের দারুণ দক্ষতায় গোল পায়নি জুভেন্তাস।

সময় যতো গড়াচ্ছিল, প্রতিপক্ষ রক্ষণে চাপ বাড়ানোর কথা জুভেন্তাসের, উল্টো সে চাপটা বাড়াচ্ছিল স্বাগতিক আটালান্টা। ৮৬ মিনিটে বদলি হিসেবে মাঠে নামা মলিনোভস্কির ফ্রি কিক থেকে জুভেন্তাস নিস্তার পায় গোলরক্ষক ভয়চেখ সজ্যাসনির দারুণ দক্ষতায়। তবে সে স্বস্তি টিকল মাত্র কয়েক সেকেন্ড।

পরের মিনিটেই ব্যবধান গড়ে দেওয়া গোলটি আসে মলিনোভস্কির পা থেকে। বক্সের বাইরে থেকে শট জুভেন্তাস ডিফেন্ডার আলেক্স সান্দ্রোর পায়ে লেগে পাল্টায় দিক, গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে আছড়ে পড়ে জালে। ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আটালান্টা।

এই হারের ফলে রোনালদোরা নেমে পড়েছেন তালিকার চতুর্থ স্থানে। ৩১ ম্যাচ শেষে দলটির সংগ্রহ দাঁড়াল ৬২ পয়েন্টে। সমান ম্যাচে ২ পয়েন্ট বেশি অর্জন করে তাদের টপকে গেছে আটালান্টা। তবে রোনালদোদের দুর্দশা আরও বাড়তেও পারে। এক ম্যাচ কম খেলে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে থাকা ন্যাপোলি যদি হারিয়ে দেয় শীর্ষে থাকা ইন্টার মিলানকে, তাহলে পয়েন্টে সমতায় চলে আসবে রোনালদোদের। এরপর এক ম্যাচে পা হড়কালেই ছিটকে যেতে হবে শীর্ষ চার থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *