ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় যশোরে স্বামী-স্ত্রী গ্রেফতার

যশোর প্রতিনিধি :

যশোরের চৌগাছায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকালে সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নের নগরবর্ণি (গোপিনাথপুর) গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- ওই গ্রামের আক্তারুজ্জামান (৪০) ও তার স্ত্রী রিফাত মনির লিজা (২৮)।

ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ব্যবহার করে ভিডিও ধারণ ও অপপ্রচারের উদ্দেশ্যে ছড়িয়ে দেয়া এবং ১৬ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে তাদের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য চাঁদনী আক্তার।

বাদীর অভিযোগ, একই এলাকায় বসবাস করার সুবাদে আসামি দম্পতির সঙ্গে তার সখ্যতা গড়ে ওঠে। সেই সূত্রে তারা তার ফেসবুক আইডি খুলে দেয়। তবে গোপনে তার ফেসবুকের আইডি খুলতে ব্যবহৃত ইমেইল অ্যাকাউন্ট ও পাসওয়ার্ড তাদের কাছে রেখে দেয়। গত ১৭ আগস্ট তাদের দুজনের নিজ নামের ফেসবুক আইডি থেকে আমার ভিডিও কলের কথোপকথনের অসচেতন মুহূর্তের ভিডিও চিত্র উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদক ও নেতৃবৃন্দ এবং স্থানীয় সাংবাদিকসহ আমার পরিচিত মহলে ছড়িয়ে দেয়া হয়।

বাদী এজাহারে উল্লেখ করেছেন, তিনি আওয়ামী লীগের চৌগাছা উপজেলা শাখার নির্বাহী কমিটির সদস্য। ২০১৬ সালে তিনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করেছিলেন। ভবিষ্যতেও নির্বাচন করবেন। আসামিরা তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ হিসেবে সামাজিকভাবে হেয় করতে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এই কাজ করেছে।  ভিডিও ছড়ানোর পরে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা হোয়াটসঅ্যাপে ম্যাসেজ ও ভয়েস ম্যাসেজের মাধ্যমে ১৬ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে এবং হুমকি-ধামকি দেয়।

চৌগাছা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম কিবরিয়া বলেন, ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ব্যবহার করে ভিডিও ধারণ ও অপপ্রচারের উদ্দেশ্যে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। সেই মামলায় মঙ্গলবার তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *